বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার নিশ্চিত উপায়

বাংলা আর্টিকেল লিখে যারা আয় করতে চান তাদের জন্য আজকের এই পোস্ট খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এই পোস্টে আপনি জানতে পারবেন নোটখাতা এবং এইরকম আরো সাইটে বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করবেন কিভাবে।

যেহেতু আপনি আমার পোস্ট টি খুঁজে পেতে সক্ষম হয়েছেন, এখন নিশ্চিত হয়ে যান যে, বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার নিশ্চিত উপায় পেয়ে গেছেন। কেননা নোটখাতা ওয়েবসাইটের প্রতিটি পোস্ট টাকা দিয়ে কেনা হয়েছে। এখন পর্যন্ত নোটখাতা ওয়েবসাইটে ১৪ জন আর্টিকেল রাইটার তাদের লেখা আর্টিকেল বিক্রি করেছে। এছাড়াও নোটখাতা ওয়েবসাইটের সাথে এমন অনেক ব্লগ ওয়েবসাইটের যোগাযোগ আছে যাদের কাছে আপনি নিয়মিত আর্টিকেল বিক্রি করতে পারবেন।

এখন আপনাকে আর্টিকেল লিখে আয় করার জন্য বেশ কিছু নিয়ম কানুন সম্পর্কে জানতে হবে। প্রথমেই বলে রাখি আপনার যদি অন্তত একটি নির্দিষ্ট কোন বিষয়ে পরিপূর্ণ জ্ঞ্যান না থাকে তাহলে আপনি এই মুহুর্তে আয় করার চিন্তা মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলুন। আপনার যে বিষয়ে পর্যাপ্ত জ্ঞ্যান আছে, যে বিষয়ে নিয়মিত রিসার্চ করতে এবং আরো জানতে ভালো লাগবে, সে বিষয়টি নিয়ে ভাবুন। মনে রাখতে হবে, আর্টিকেল লেখার দক্ষতা থাকলে আপনি যেকোন বিষয়ে আর্টিকেল লিখে আয় করতে পারবেন।

পুরো পোস্ট টি আপনাকে খুব মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে। এখানে আমি ধাপে ধাপে সবকিছু ব্যাখ্যা করব। চলুন তাহলে জেনে নিই

আর্টিকেল লিখে আয় করার উপায়

আর্টিকেল লিখে আয় করার সবচেয়ে সহজ উপায় হলো, কোন নির্দিষ্ট বিষয়ে আর্টিকেল লিখে ঐ বিষয়ের সাথে রিলেভেন্ট কোন ওয়েবসাইটে তা বিক্রি করে দেয়া। এটা আপনি পার্ট টাইম হিসেবে করতে পারেন। যদি মনে করেন আপনার হ্যান্ডসাম এমাউন্ট আর্ন করতে হবে তাহলে আপনাকে নিয়মিত লিখতে হবে। আর্টিকেল রাইটার হিসেবে পার্মানেন্ট জবও করতে পারেন।

আরেকটি উপায় হলো, আপনার আর্টিকেল লেখার দক্ষতা কাজে লাগিয়ে ব্লগিং শুরু করতে পারেন। যেটা আপনার একসময় পর বিজনেসে রূপান্তরিত হতে পারে। যদি মনে করেন আর্টিকেল রাইটার হিসেবে নিজের ক্যারিয়ার তৈরি করবেন, তাহলে ব্লগিং শুরু করেন। কেননা আপনি ব্লগিং করে প্রতিমাসে ১০০ থেকে হাজার ডলার বা তারও বেশি আয় করতে পারবেন। আমাদের ওয়েবসাইট থেকে জেনে নিন, ব্লগিং করে কত টাকা আয় করা যায়

দ্বিতীয় উপায়টি বেশ লোভনীয় বটে, কিন্তু এখানে আপনার হাড়ভাঙ্গা খাটুনি দিতে হবে এবং অসীম ধৈর্য থাকতে হবে। প্রফেশন হিসেবে ব্লগিং সম্পর্কে প্রায় সবাই জানে। বর্তমান সময়ে এসে ব্লগিং এর প্রতি মানুষের আগ্রহ ব্যপক আকারে বেড়ে গেছে। প্রতিযোগিতাও অনেক বেশি। তবে সঠিক উপায়ে পরিশ্রম করলে আপনি কখনো ব্লগিং করে ব্যার্থ হবেন না। আমি এরকম অনেক দেখেছি, আপনিও হয়তো দেখেছেন অনেকেই ব্লগিং শুরু করে ঠিকই কিন্তু খুব বেশিদিন টিকতে পারে না। এর মূল কারণ হলো সঠিক উপায় না জানা।

হতাশ হবার কোন কারণ নেই, নোটখাতা ওয়েবসাইটে আপনি এইসব বিষয়ে শতভাগ সঠিক তথ্য এবং পরিপূর্ণ গাইডলাইন পাবেন। আসুন আগে জেনে নিই আর্টিকেল লিখে আয় করার কমপ্লিট গাইডলাইন সম্পর্কে।

আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট

আর্টিকেল লিখে আয় করার সাইট হিসেবে আমি আপনাদেরকে সবার প্রথমেই নোটখাতা ওয়েবসাইট কে সাজেস্ট করব। আমি নোটখাতা ওয়েবসাইটে একজন পার্ট টাইম রাইটার হিসেবে প্রায় ৬ মাস ধরে আর্টিকেল লিখছি। এখন পর্যন্ত আমার লেখা ৭০টি আর্টিকেল এখানে পাবলিশ করা হয়েছে। এই সাইটে আমি আর্টিকেল বিক্রি করে সবসময় সঠিক সময়ে পেমেন্ট পেয়েছি, যা অন্য কোন সাইটে পাইনি। সবচেয়ে বড় কথা হলো এখানে আমি আমার পরিশ্রম এবং মেধার যথেষ্ট মর্যাদা পেয়েছি। তাই আমি আপনাদের আর অন্য কোন সাইট সাজেস্ট করব না।

আমি আমার অভিজ্ঞতা শেয়ার করছি, যা আপনাদের জন্য খুবই উপকারী হবে এবং বুঝতে সুবিধা হবে। আমি পেশায় একজন ডিজিটাল মার্কেটার। এই ব্লগে আমার লেখা প্রথম আর্টিকেল ছিল, “আর্টিকেল লেখার নিয়ম” যেটি আমাকে এই সাইটের এডমিন প্যানেল বুঝিয়ে দিয়েছিল। এই সাইট থেকে আয় করতে হলে যে নিয়মগুলো আপনাকে অবশ্যই মানতে হবে। তারপর আরেকটি পোস্ট আছে যেটি আপনাদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ, ব্লগে পোস্ট করার নিয়ম। এক কথায় আমার আর্টিকেল রাইটিং স্কিল ডেভেলপ করতে এই সাইটের এডমিন প্যানেল অনেক বেশি হেল্প করেছে।

পরবর্তী সময়ে নোটখাতা আমাকে রাইটার জাজ করার দায়িত্ব টা বুঝিয়ে দিয়েছে। তাই এই ব্লগে কাজ করতে হলে আমার নির্দেশনা গুলো মেনে চলার চেষ্টা করুন।

আর্টিকেল লিখে কত টাকা আয় করা যায়

আপনি যদি ব্লগিং করে আয় করতে চান, তাহলে কত টাকা আয় করতে পারবেন তা অলরেডি জেনে গেছেন। আমার অন্যন্য পোস্টেও এই বিষয়ে বলেছি। এখন বলব আর্টিকেল বিক্রি করে কত টাকা আয় করতে পারবেন।

আমি এমন অনেক ব্লগার কে ই দেখেছি যারা ৫টাকা থেকে শুরু করে সর্বোচ্চ ২৫টাকা দরে প্রতিটি আর্টিকেল কিনে থাকে। তবে আমি যেখানে কাজ করেছি ৫০টাকার নিচে কোথাও আমার লেখা বিক্রি করি নাই। আমি যখনই নোটখাতার সন্ধান পেলাম, তারপর থেকে আর অন্য কোথাও কাজ করা হয়নি। এখানে আমার প্রতিটি আর্টিকেল সর্বনিম্ন ১০০ টাকা এবং অনেক আর্টিকেল ২০০ টাকায় বিক্রি করেছি।

যদিও এখানে ভালো দাম পেয়েছি এর জন্য আমাকে যথেষ্ট পরিশ্রম করতে হয়েছে। এখানে কাজ করতে হলে আপনার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ শর্ত হলো, নোটখাতা ওয়েবসাইট এবং এর ভিজিটরদের ভালবাসতে হবে। কোন ধরনের মানুষ এখানে আসছে, কেন আসছে, ভবিষ্যতে কি ধরনের পোস্ট চাচ্ছে এসব বিষয়ে আপনাকে ভাবতে হবে। মোট কথা হলো এখানে এসে আপনি হঠাত কোন একটা আর্টিকেল বিক্রি করে দিয়ে চলে যেতে পারেন না। এই ওয়েবসাইটের ভিজিটরদের মনের অবস্থা আপনাকে বুজতে হবে। তাদের কখনো হতাশ করা যাবে না।

আর্টিকেল লিখে আয় করার নিয়ম

প্রথমে আপনার নিজের লেখা কিছু আর্টিকেল থাকতে হবে। কেননা আপনি যখন কোথাও আর্টিকেল লিখে আয় করতে যাবেন তখনই তারা আপনার কাছে জানতে চাইবে আগে কোথাও আর্টিকেল লিখেছেন কি না, ডেমো দেখতে চাইবে। যদি আপনি আগে থেকে আর্টিকেল লিখে রাখেন তাহলে ত কথাই নেই। আপনাকে যেকোন একটি ক্যাটাগরি বাছাই করতে হবে এবং ঐ ক্যাটাগরিতে নিয়মিত লিখতে হবে।

বাংলা ব্লগে সবচেয়ে বেশি যেটি নিয়ে বিজনেস হয় তা হলো কোর্স বিক্রি। আপনি বিভিন্ন আইটি কোম্পানি দেখতে পাবেন, তারা কোর্স নিয়ে বিভিন্ন ব্লগ এবং টিউটোরিয়াল বানিয়ে থাকে। আপনি যদি এসব বিষয়ে লিখতে পারেন তাহলে বেশ ভালো মানের ইনকাম করতে পারবেন।

আরেকটি বিষয় খেয়াল করে দেখবেন বাংলায় অনেক ই-কমার্স সাইট রয়েছে। তারা বিভিন্ন ব্লগে প্রোডাক্ট রিভিও এবং মানুষের সমস্যার সমাধান দিয়ে থাকে। আপনি তাদের সাথে কাজ করতে পারলে মান্থলি বেশ হ্যান্ডসাম এমাউন্ট আর্ন করতে পারবেন।

আপনার আর্টিকেল লেখার দক্ষতা আছে, নিয়মিত আর্টিকেল লিখে যাচ্ছেন, আপনার পছন্দমত দাম পাচ্ছেন না, এরকম হলে আপনার পাশে নোটখাতা আছে সবসময়। আমদের সাথে যোগাযোগ করুন নির্দ্বিধায়।

Zahid Jewel

I claim to be an SEO expert and a professional digital marketing consultant. I am here to share my knowledge and experience. Do you want to learn more about me? Type " zahid jewel " google search bar and hit search. You will get all information about me.

One thought on “বাংলা আর্টিকেল লিখে আয় করার নিশ্চিত উপায়

  • August 6, 2021 at 7:16 am
    Permalink

    great article keep it up. I have learned a lot

    Reply

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *