পাছে লোকে কিছু বলে, বলুক না তাতে কি এসে যাই
পাছে লোকে কিছু বলে

পাছে লোকে কিছু বলে, বলুক না তাতে কি এসে যাই

বলুক না তাতে কি এসে যাই। তবে হ্যা আমরা অনেকে আছি যারা ভয়ে এই পিছনে কথা বলা মানুষদের কে বেশি প্রধান্য দিয়ে ফেলি।আসলে এই মানুষ গুলো তার যোগ্য না।কোনো কাজ করার আগে ভয়ে থাকি,কি জানি কে কি বলে।আপনি যত ভালো কাজ করুন না কেন আপনার বিষয়ে কথা বলার জন্য অসংখ্য মানুষ বসে আছে। হোক না সেটি ভালো কাজ।

বিশেষ করে মেয়েদের ক্ষেত্রে যেটি হয়ে থাকে।তবে শুধু মেয়ে নয়ই ছেলেদের ও এই সমস্যার সম্মুখীন হতে হই।

এ সমাজে মেয়েদের পায়ে পায়ে দোষ থাকে।একটা মেয়ে যখন স্কুলে যায়,দশম ক্লাস শেষ করতে না করতেই অনেকের বিয়ে হয়ে যাই।আর বিয়ে না করলে পিছনে একদল মানুষ এসে বলে মেয়ে মানুষ এতো পড়ালেখা করে কি হবে।মেয়ে মানুষের এত পড়াশোনা করতে নেই।যাবে তো পরের বাড়ি। যদি মেয়ে জব করে তো ঐই মেয়ে ভালো না জব করা মেয়েরা ভালো হয় না।কেন রে ভাই কেন ভালো হয় না।জব করা মেয়েরা কি দোষ করেছে।

আর রইল ছেলেরা তাদের ও কম শুনতে হয় না।পড়াশোনা শেষ কি রে সারাদিন বাড়িতে কিছু করতে পারছিস না।কি করলি পড়াশোনা করে।একটা ছেলে যখন পড়াশোনা শেষে কোনো কাজ না পাই তখন তাকে তার পরিবার, আত্মীয় এমনকি আশেপাশের অনেকের থেকে অনেক কথাই শুনতে হয়।

এই পাছে কথা বলা লোক গুলোর কারনে অনেকে আছে ডিপ্রেশনে ভোগে কাওকে কিছু বলতে পারে না।অনেকে আছে যারা ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলে।

তাই বলছি আপনি আমি যত ভালো কাজই করি না কেন কখনোই এই ধরনের মানুষদের থেকে মুক্তি পাবেন না।তাই পাছে লোকে কি বললো সেদিকে কান না দিয়ে,নিজের মন কি বলে সেটাই করুন।সব সময় নিজের কাছে নিজেকেই প্রধান্য দিন,নিজের কাজ কে প্রধান্য দিন।

Leave a Reply